গাজীপুর গ্যাস সংযোগ প্রদানকারী ৩ জনের জেলসহ দুই নারীকে জরিমানা

রোকুনুজ্জামান

গাজীপুর সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার বাসা-বাড়িতে আবাসিক অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করন অভিযান চালিয়েছে জেলা প্রশাসন ও তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। এসময় মোবাইল কোর্টে তিন জন কে কারাদন্ড দুই নারী কে আর্থদন্ড করা হয়।

গাজীপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইকবাল হোসেন এর নেতৃত্বে (১৮অক্টোবর) রোববার সকাল দশটা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত এ অভিযান চলে। এ সময় গিলাগাছিয়া, খাসপাড়া, পিরুজালী, ৫কিলোমিটার এলাকার ৫টি স্পর্টে ২য় বারের মতো অবৈধভাবে স্থাপিত ২ ব্যাসের ৫০০ মিটার পাইপ লাইনের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। ফলে প্রায় ১০০০বাড়ীর আনুমানিক ২৫০০ অবৈধ চুলার গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়।

গাজীপুর জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, মো. ইকবাল হোসেন জানান, অবৈধ গ্যাস লাইন স্থাপন করে গ্যাস সংযোগ প্রদান করার দায়ে, স্থানীয় মৃত ইয়াকুব আলীর সন্তান হারুন মিয়া(৩৫)-কে ৬০ দিন, সোলাইমানের সন্তান জাহাঙ্গীর (৩১)-কে ৪৫ দিন, মোসলেহ উদ্দিনের সন্তান আতাউল্লাহ (৬৫)-কে ২১ দিনের কারাদন্ড প্রদান করা হয়। এবং অবৈধ গ্যাস ব্যবহার করার দায়ে রানীজা বেগম-কে ৩০ হাজার ও হাজেরা বেগম-কে ৩ হাজার করে মোট ৩৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এবং রাষ্ট্রীয় এ সম্পদের চুরি ঠেকাতে আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

প্রকৌশলী মো.সুরুয আলম জানান, অবৈধ গ্যাস সংযোগ কাজের মূল হোতাদের গ্রেফতারের প্রক্রিয়া চলমান থাকবে। এবং যারা অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ গ্রহণ করেছেন এবং যারা গ্রামের সাধারণ মানুষকে গ্যাসের প্রলোভন দেখিয়ে অনাকাংক্ষিত ভয়াবহ গ্যাস দুর্ঘটনা দিকে ঠেলে দিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন গাজীপুর জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইকবাল হোসেন, প্রকৌ. মো. সুরুয আলম, ব্যবস্থাপক(জোবিঅ-জয়দেবপুর), আবদুুল্লাহ হাসান আল মামুন, প্রকৌ. মির্জা শাহনেওয়াজ লতিফ, মো.মোশাররফ হোসেন(রাজস্ব)-উপব্যবস্থাপকবৃন্দ এবং রাজস্ব উপশাখার মো.আব্দুর রাজ্জাক ও মো. ইকবাল হোসেন চৌধুরী, সহকারী কর্মকর্তাদ্বয়, খান মিজানুর রহমান-সিনিয়র সুপারভাইজার, এস এম আনোয়ার হোসেন-বিক্রয় সহকারী, ইয়াহিয়া শিহান-হিসাব করণীক, মো.সামসুল হক-প্রকর্মী, মো. নাছির উদ্দিন-জুনিয়র প্রকর্মীসহ টেকনিক্যাল টিম উপস্থিত ছিলেন এবং তিতাসের অন্যান্য কর্মকর্তারা। জেলা পুলিশ ও (৩৫) ব্যাটালিয়ান আনসার সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেন।

এই খবর গুলিও পড়তে পারেন